1. admin@chunarughat24.com : admin :
বৈবাহিক ধর্ষণঃ সরকারের কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছেন হাইকোর্ট
মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ০৮:০৭ অপরাহ্ন

বৈবাহিক ধর্ষণঃ সরকারের কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছেন হাইকোর্ট

শুহিনুর খাদেম
  • সময় : মঙ্গলবার, ৩ নভেম্বর, ২০২০
  • ১২৪ বার পঠিত
সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগে কোটা বাতিলে রিট

শুহিনুর খাদেম।। ‘বৈবাহিক ধর্ষণের’ আইনি প্রতিকারের বিষয়ে সরকারের কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছেন দেশের উচ্চ আদালত। মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর), আদালত এই আদেশ দেন। ১৯৯৩ সালে বৈবাহিক ধর্ষণকে মানবাধিকার লঙ্ঘন বলে ঘোষণা দেয় জাতিসংঘ। বাংলাদেশ এখন পর্যন্ত বিষয়টিকে স্বীকৃতি দেয়নি।

এর আগে ভয় দেখিয়ে, প্রতারণার মাধ্যমে বা সম্মতি ছাড়া স্ত্রীর সঙ্গে যৌন সঙ্গমকে ‘বৈবাহিক ধর্ষণ’ গণ্য করে আইন সংশোধন করতে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়। গত রবিবার (০১ নভেম্বর), একজন সাংবাদিকের পক্ষে সংশ্লিষ্টদের কাছে নোটিশটি পাঠান আইনজীবী মো. জাহিদ চৌধুরী জনি।

আইন সচিব, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, আইন কমিশন ও জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান, মহিলা ও শিশুবিষয়ক অধিদপ্তর ও সমাজসেবা অধিদপ্তরের মহাপরিচালককের কাছে নোটিশটি পাঠানো হয়। এ সময় সাত দিন সময় বেধে দেয়া হয়।

নোটিশে বলা হয়, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ও দণ্ডবিধিসহ সংশ্লিষ্ট সব আইন ও বিধিতে ‘বৈবাহিক ধর্ষণ’ অন্তর্ভুক্ত করে আলাদা গেজেট প্রকাশের অনুরোধ জানানো হয়। যথাসময়ে পদক্ষেপ না নিলে হাইকোর্টে রিট আবেদন করাসহ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও উল্লেখ করা হয়।

উল্লেখ্য, বেসরকারি সংস্থা ‘মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন’র পরিসংখ্যান উদ্ধৃত করে নোটিশে আরো বলা হয়, গত এপ্রিলে কমপক্ষে ৪ হাজার ২৪৯ জন নারী ও ৪৫৬ শিশু পারিবারিক সহিংসতার শিকার হয়েছে। এর মধ্যে ৬৫ জেলায় ২৭ নারী বৈবাহিক ধর্ষণের শিকার হয়েছেন।

Facebook Comments
এ জাতীয় আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

স্বত্ব সংরক্ষিত © 2020 চুনারুঘাট
কারিগরি Chunarughat
Don`t copy text!