1. admin@chunarughat24.com : admin :
বড়পুকুরিয়ার কয়লা থেকে উন্নত মানের সুপার ক্যাপাসিটর উদ্ভাবন সম্ভবঃ ওয়েবিনার
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ০৮:৩১ অপরাহ্ন

বড়পুকুরিয়ার কয়লা থেকে উন্নত মানের সুপার ক্যাপাসিটর উদ্ভাবন সম্ভবঃ ওয়েবিনার

সৈকত মোহাম্মদ ফারুক
  • সময় : রবিবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ২০৩ বার পঠিত
বড়পুকুরিয়ার কয়লা থেকে উন্নত মানের সুপার ক্যাপাসিটর উদ্ভাবন সম্ভবঃ ওয়েবিনার

সৈকত মোহাম্মদ ফারুক।। বড় পুকুরিয়ার কয়লা খনি থেকে উত্তোলিত কয়লা ব্যবহার করে অত্যাধুনিক এনার্জি স্টোরেজ ডিভাইস সুপার ক্যাপাসিটর তৈরির গবেষণা করেছেন বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের একদল বাংলাদেশি গবেষক। তাদের প্রাপ্ত গবেষণা ফলাফল আন্তর্জাতিক স্বনামধন্য বৈজ্ঞানিক গবেষণা জার্নাল “জার্নাল অব এনার্জি স্টোরেজ” এ ইতোমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. এ. জে. সালেহ আহাম্মদ এর নেতৃত্বে পরিচালিত গবেষণা টিমে যুক্ত ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক তামান্না ইসলাম, মেহেদি হাসান এবং সৌদি আরবের কিং ফাহাদ ইউনিভার্সিটি অব পেট্রোলিয়াম এন্ড মিনারেলস এর বাংলাদেশি গবেষক ড. আব্দুল আজিজ সহ আরও অনেকে।

বাংলাদেশ ন্যানো সোসাইটির উদ্যোগে শনিবার রাতে (১৯ ডিসেম্বর) আয়োজিত ‘ন্যানোস্ট্রাকচার্ড কার্বন ফ্রম বড়পুকুরিয়া কোল মাইনঃ এনার্জি স্টোরেজ এপ্লিকেশন” শীর্ষক ওয়েবিনারে দেশীয় কাঁচামাল ব্যবহার করে উন্নত প্রযুক্তির ডিভাইস উদ্ভাবনের সম্ভাবনা তুলে ধরা হয়।

উক্ত ওয়েবিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন গবেষণা দলের প্রধান ড. এ. জে. সালেহ আহাম্মদ। বড়পুকুরিয়ার কয়লার গুণগত মান ও কয়লা থেকে আহরিত কার্বন ন্যানোমেটেরিয়াল দিয়ে সুপার ক্যাপাসিটর তৈরির পদ্ধতি, ডিভাইসের কার্যক্ষমতা ও উন্নত প্রযুক্তির ডিভাইস তৈরির ভবিষ্যৎ সম্ভাবনার ওপর তিনি বিস্তারিত আলোচনা করেন। এনার্জি স্টোর করে রাখতে ভবিষ্যতে সুপার ক্যাপাসিটর সবচেয়ে নির্ভরশীল ও কার্যকর ডিভাইস হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

বুয়েটের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান ড. মোঃ শাখাওয়াৎ হোসেন ফিরোজ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওয়েবিনারে উপস্থাপিত প্রবন্ধের ওপর আলোচনা করেন আমেরিকার নর্থ ডাকোটা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলাদেশি গবেষক ড. মো: আশরাফ হোসেন রাসেল। আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে বড়পুকুরিয়ার কয়লার সর্বোত্তম ও বহুমুখী ব্যবহার এর সম্ভাবনা সম্পর্কে তিনি আলোচনা করেন।

দেশ ও বিদেশ থেকে ওয়েবিনারে অংশ নেওয়া গবেষকগণ উপস্থাপিত গবেষণা ফলাফলের খুটিনাটি বিষয়ের ওপর আলোচনা করেন। বড়পুকুরিয়ার কয়লা নিয়ে গবেষণা এবং গবেষণায় সরকারি সহযোগিতা আরও বাড়ানোর ওপর সবাই গুরুত্বারোপ করেন।

মুল আলোচনা শেষে বুয়েটের রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আবু বিন ইমরান প্রশ্নোত্তর পর্ব সঞ্চালনা করেন।

আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি-বাংলাদেশ (এআইইউবি) এর রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মাহবুব রব্বানী এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত ওয়েবিনারটি বুয়েটের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. আল-নকীব চৌধুরীর সমাপনী বক্তব্যের মাধ্যমে শেষ হয়।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ ন্যানো সোসাইটি নিয়মিতভাবে এ ধরণের ওয়েবিনারের আয়োজন করে থাকে।

Facebook Comments
এ জাতীয় আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

স্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2021 চুনারুঘাট
কারিগরি Chunarughat
Don`t copy text!