1. admin@chunarughat24.com : admin :
গাঁজা চাষের অনুমতি দেওয়ার পরিকল্পনা করছে পাকিস্তান
শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৩:৪৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
‘চীনের নিয়ন্ত্রণহীন রকেট নামিয়ে আনার পরিকল্পনা নেই যুক্তরাষ্ট্রের’ ২০ মে ‘চা শ্রমিক দিবস’ ঘোষণাসহ ১০ দফা দাবীতে স্মারকলিপি প্রদান শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ ভারী বৃষ্টিপাতে কুশিয়ারাসহ উত্তর-পূর্বাঞ্চলের প্রধান সব নদীর পানি বৃদ্ধি পাবে সোহরাওয়ার্দি উদ্যানের গাছ কাটা বন্ধে আদালতের নোটিশ জাতীয় অধ্যাপক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন তিনজন বিশিষ্ট ব্যক্তি চুনারুঘাটে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় দুই বন্ধু আহত সিলেট মেরিন একাডেমীর যাত্রা শুরু: উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী চুনারুঘাটে পুলিশের ওপর হামলা, আসামী ছিনতাই চিকিৎসার্থে খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে

গাঁজা চাষের অনুমতি দেওয়ার পরিকল্পনা করছে পাকিস্তান

চুনারুঘাট
  • সময় : শুক্রবার, ৯ এপ্রিল, ২০২১
  • ১০১ বার পঠিত
গাঁজা চাষের অনুমতি দেওয়ার পরিকল্পনা করছে পাকিস্তান

শিল্পের জন্য বৃহদাকারে গাঁজা চাষের অনুমতি দেওয়ার পরিকল্পনা করছে পাকিস্তান সরকার। এর মাধ্যমে আগামী তিন বছরে ১০০ কোটি ডলার আয়ের সম্ভাবনা দেখছে দেশটির সরকার।

মাদক হিসেবে পরিচিত হলেও চিকিৎসায় গাঁজা ব্যবহার হচ্ছে যুগ যুগ ধরে। ওষুধ শিল্পে কাঁচামাল হিসেবেও এর চাহিদা রয়েছে।

বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান গ্লোবাল মার্কেট ইনসাইটের গবেষণা অনুযায়ী, ২০২৫ সাল নাগাদ বিশ্বে গাঁজার বৈধ বাজারের আকার ৫৯ হাজার কোটি ডলার ছাড়িয়ে যাবে।

সম্প্রতি সদস্য দেশগুলোর এক ভোটাভুটির মাধ্যমে গাঁজাকে কঠিন মাদকের তালিকা হতে সরিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতিসংঘ।

চিকিৎসা বিজ্ঞানের গবেষণায় গাঁজার প্রয়োজনীয়তার কথা মাথায় রেখেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতিসংঘ।

এর আগে ২০১৯ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে জাতিসংঘকে পরামর্শ দিয়েছিলো।

এদিকে গত কয়েক বছর ধরে ভালো যাচ্ছে না পাকিস্তানের অর্থনীতি। এছাড়া, দেশটির কৃষি শিল্পও পড়তির দিকে। সে দেশের রপ্তানির ৬৪ ভাগ আসতো তুলা থেকে। অথচ তুলার উৎপাদনও কমেছে ২০ শতাংশ। লোকসানে পড়ছেন পাকিস্তানের কৃষকেরা। সেখানে গাঁজা চাষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে বলে মনে করছে দেশটির সরকার।

গত সেপ্টেম্বরেই গাঁজা চাষের অনুমতি দেওয়ার ঘোষণা এসেছিলো পাকিস্তানের সরকার থেকে।

দেশটির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারের একটি অংশ ধরতে পারলে তিন বছরে এই খাত থেকে পাকিস্তানের আয় দাঁড়াবে ১০০ কোটি ডলার।

এ ব্যাপারে পাকিস্তানে বসবাসরত জার্মান পরিবেশবিদ হেলগা আহমেদ বলেন, গাঁজা খারাপ আবহাওয়াতেও চাষ করা সম্ভব। এ জন্য কোনো কীটনাশকের প্রয়োজন নেই বলেও পরিবেশবান্ধব ও নিরাপদ।

পরিবেশবিদ আরও বলেন, অল্প জমিতেও এটি যথেষ্ট জন্মে এবং তুলা চাষের চেয়েও কম পানি প্রয়োজন।

বাংলা অনলাইন।

Facebook Comments
এ জাতীয় আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

স্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2021 চুনারুঘাট
কারিগরি Chunarughat
Don`t copy text!