1. admin@chunarughat24.com : admin :
চুনারুঘাটে জরাজীর্ণগৃহে বাস করা জরিনার পাশে উপজেলা প্রশাসন
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ০৮:২৬ অপরাহ্ন

চুনারুঘাটে জরাজীর্ণগৃহে বাস করা জরিনার পাশে উপজেলা প্রশাসন

এফ এম খন্দকার মায়া
  • সময় : সোমবার, ১৭ মে, ২০২১
  • ৯৬ বার পঠিত
চুনারুঘাটে জরাজীর্ণগৃহে বাস করা জরিনার পাশে উপজেলা প্রশাসন

এফ,এম খন্দকার মায়া।। পল্লীকবি জসীমউদ্দীন তাঁর “আসমানী” কবিতায় লিখেছিলেন-

“বাড়ি তো নয় পাখির বাসা ভেন্না পাতার ছানি,
একটুখানি বৃষ্টি হলেই গড়িয়ে পড়ে পানি।
একটুখানি হাওয়া দিলেই ঘর নড়বড় করে,
তারি তলে আসমানীরা থাকে বছর ভরে।”

পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর এর রাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ারকৃত একটি ভিডিও দেখে পল্লীকবি জসীমউদ্দীন এর “আসমানী” কবিতার কথা খুব মনে পড়ে যায়।

চুনারুঘাট উপজেলার ৬ নং সদর ইউনিয়ন পরিষদ এর অন্তর্গত জিকুয়া গ্রামের জরিনা বেগমের জরাজীর্ণ ঘরের ভিডিওটি স্থানীয় সাংবাদিক ও সংগঠক এফ এম খন্দকার মায়া উপজেলা প্রশাসন কে ইনবক্সে পাঠান।

তখন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সত্যজিত রায় দাশ দেখে সাথে সাথেই চুনারুঘাটের সহকারী কমিশনার (ভূমি) মিলটন চন্দ্র পালকে ফরওয়ার্ড করেন এ পরিবার সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহের জন্য।

মিলটন চন্দ্র পাল সাথে সাথেই পোস্টদাতার সাথে যোগাযোগ করে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করে উপজেলা প্রশাসনকে অবগত করেন।

মুজিববর্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী চুনারুঘাট উপজেলার সকল ‘ক’ তালিকাভুক্ত ভূমিহীন ও গৃহহীন ব্যক্তিদের জন্য গৃহ নির্মাণ কার্যক্রম পরিচালনা করছে উপজেলা প্রশাসন, চুনারুঘাট।

প্রথম পর্যায়ে ইকরতলীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করেন ৭৪টি বাসগৃহ। প্রথম পর্যায়ের অবশিষ্ট ৬ টি বাসগৃহ নির্মাণ করা হয় পানছড়ি আশ্রয়নে।

বর্তমানে দ্বিতীয় পর্যায়ের ত্রিশটি ঘর নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে রানীগাঁও ইউনিয়নে।

অল্প কিছুদিনের মধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আরো ৩০টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের হাতে তুলে দিবেন দ্বিতীয় পর্যায়ের বাসগৃহগুলো।

সহকারী কমিশনারের (ভূমি) দেয়া তথ্য থেকে নির্বাহী অফিসার জানতে পারেন, জরিনা বেগম গৃহহীন হলেও ৪ শতাংশ ভূমির মালিক। এখানেই নতুন বসতঘর নির্মাণ করা হলে তিনি উপকৃত হবেন।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী চুনারুঘাট উপজেলার প্রতিটি গৃহহীন মানুষকে বাসগৃহ নির্মাণ করে দেয়ার প্রত্যয় বুকে নিয়ে মুজিববর্ষে শুরু থেকেই নিষ্ঠার সাথে কাজ করছে উপজেলা প্রশাসন।

সে ধারাবাহিকতায় রবিবার (১৬ মে) বিকাল ৫.০০ ঘটিকায় চুনারুঘাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল কাদির লস্কর এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সত্যজিত রায় দাশ ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মিল্টন চন্দ্র পালকে সাথে নিয়ে সরেজমিনে এযুগের “আসমানী” জরিনা বেগমের বাসগৃহ পরিদর্শন করেন।

চুনারুঘাটে জরাজীর্ণগৃহে বাস করা জরিনার পাশে উপজেলা প্রশাসন

ছবিঃ জরিনা বেগমের কুটির।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল কাদির লস্করের সাথে পরামর্শে আগামী দুইদিনের মধ্যে জরিনা বেগমের জরাজীর্ণ ছাউনির স্থলে উপজেলা পরিষদের অর্থায়নে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে নতুন পাকা বাসগৃহ নির্মাণের কাজ শুরুর উদ্যোগ গ্রহণ করেন।

উল্লেখ্য, লাইভ ভিডিওর মাধ্যমে বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনের নজরে আনেন শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার সমাজসেবক রফিক।

এবং পরবর্তীতে ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন এবং স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের বাবুল হোসেনও বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

বিষয়টি নজরে আনার জন্য উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের প্রতি আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়।

চুনারুঘাট উপজেলা প্রশাসন এমনই অসহায় ও দরিদ্র মানুষকে মুজিববর্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার পৌঁছে দিতে খুঁজে চলেছে নিরন্তর।

তাই, আর্তমানবতার সেবায় এমন গৃহহীন ও দুস্থ মানুষের তথ্য দিয়ে উপজেলা প্রশাসনকে সহযোগিতা করার জন্য সকলকে বিনীতভাবে অনুরোধ জানান।

সে সাথে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রত্যয় অনুসরণ করে বাংলাদেশের প্রতিটি অঞ্চলের মতো চুনারুঘাট উপজেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত করতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল সামর্থ্যবান ব্যক্তিদের এগিয়ে আসার অনুরোধও জানানো হয়।

সকলে মিলিতভাবে উদ্যোগ গ্রহণ করে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে সহায়ক ভূমিকা রাখবে এই প্রত্যাশা করেন সকলে।

Facebook Comments
এ জাতীয় আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

স্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2021 চুনারুঘাট
কারিগরি Chunarughat
Don`t copy text!