1. admin@chunarughat24.com : admin :
'ব্ল্যাক ফাঙ্গাস'কে মহামারী হিসেবে ঘোষণা করলো ভারত
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ১০:০৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবীতে মানববন্ধন থেকে আল্টিমেটাম মঙ্গলে জীবনের অস্তিত্ব আছে কী? চুনারুঘাটে অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার দাবীতে খোলা চিঠি চীনের সিনোফার্মের টিকা প্রয়োগের মাধ্যমে দ্বিতীয় পর্যায়ের টিকাদান শুরু সাইয়েদ ইব্রাহিম রায়িসি ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানের ১৩তম প্রেসিডেন্ট ২২ জুন থেকে খুলনায় এবং ২০ জুন থকে বগুড়ায় এক সপ্তাহের লকডাউন জীবন বিপর্যয় রোধকল্পে সামাজিক নিরাপত্তা: কল্পনা ও নির্মম বাস্তবতা এবার করোনার রহস্যময় ‘বাংলাদেশ ভ্যারিয়েন্ট’! ঢাকা ব্যাংকের ভল্ট থেকে পৌনে ৪ কোটি টাকা উধাও, ২ কর্মকর্তা গ্রেফতার গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের বিমান হামলা

‘ব্ল্যাক ফাঙ্গাস’কে মহামারী হিসেবে ঘোষণা করলো ভারত

চুনারুঘাট
  • সময় : বৃহস্পতিবার, ২০ মে, ২০২১
  • ৯১ বার পঠিত
'ব্ল্যাক ফাঙ্গাস'কে মহামারী হিসেবে ঘোষণা করলো ভারত

ভারতে কোভিড- ১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউয়ে ব্যাপক প্রানহানির মধ্যেই চিকিৎসকদের ‘মিউকুরমাইসিস’ বা ব্ল্যাক ফাঙ্গাস সংক্রমণের মোকাবেলা করতে হচ্ছে।

ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে কোভিড আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে সংক্রমণটি ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ছে।

দুই মাস আগে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে এই বিরল প্রাণঘাতী ব্ল্যাক ফাঙ্গাস সংক্রমণটি শনাক্ত হয়।

উদ্ভুত পরিস্থিতিতে কর্তৃপক্ষ রোগটিকে ‘এপিডেমিক ডিজিজ অ্যাক্ট’ এর আওতায় মহামারী হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

এর আগে বুধবার রাজস্থান ও তেলেঙ্গানা রাজ্য সর্বপ্রথম ব্ল্যাক ফাঙ্গাসকে মহামারী হিসেবে ঘোষণা করেছে।

আর মহারাষ্ট্রে এ রোগে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় দুই হাজার। ভারতের এই রাজ্যে রোগটির সবচেয়ে বেশী বিস্তার ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ‘এপিডেমিক ডিজিজ অ্যাক্ট’ এর আওতায় ‘মিউকুরমাইসিস বা ব্ল্যাক ফাঙ্গাস’ সংক্রমণের তালিকা চেয়ে সকল রাজ্য সরকারের কাছে চিঠি পাঠিয়েছে এবং বিষয়টি ইউনিয়ন হেলথ মিনিস্ট্রিকে অবহিত করেছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের জয়েন্ট সেক্রেটারি চিঠিতে বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে মিউকুরমাইসিস নামে একটি ছত্রাক সংক্রমণ নতুন সংকট হিসেবে দেখা দিয়েছে। অনেক রাজ্যে কোভিড-১৯ রোগীরা, বিশেষত যারা স্টেরয়েড থেরাপি নিচ্ছেন, এবং যাঁদের সুগারের মাত্রা অনিয়ন্ত্রিত, তারা এ রোগে বেশী আক্রান্ত হচ্ছেন।

তিনি আরো বলেন, এই সংক্রমণটি কোভিড-১৯ রোগীদের দীর্ঘমেয়াদি রোগের মধ্যে দিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

স্বাস্থ্যকর্মীদের মতে, এই রোগের সাধারণ লক্ষণগুলো হচ্ছে- মাথাব্যথা, জ্বর, চোখের নীচে ব্যথা ও চোখে দেখতে না পাওয়া।

চিকিৎসার ব্যাপারে স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা ছত্রাকনাশক ওষুধ হিসেবে আম্পুরেরিসিন- বি ব্যবহার করা পরামর্শ দিয়েছেন।

অনলাইন।

Facebook Comments
এ জাতীয় আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

স্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2021 চুনারুঘাট
কারিগরি Chunarughat
Don`t copy text!