1. admin@chunarughat24.com : admin :
মিয়ানমারের পূর্বাঞ্চলে সংঘর্ষে প্রায় ১ লাখ মানুষ গৃহহীন: জাতিসংঘ
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ০৯:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবীতে মানববন্ধন থেকে আল্টিমেটাম মঙ্গলে জীবনের অস্তিত্ব আছে কী? চুনারুঘাটে অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার দাবীতে খোলা চিঠি চীনের সিনোফার্মের টিকা প্রয়োগের মাধ্যমে দ্বিতীয় পর্যায়ের টিকাদান শুরু সাইয়েদ ইব্রাহিম রায়িসি ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানের ১৩তম প্রেসিডেন্ট ২২ জুন থেকে খুলনায় এবং ২০ জুন থকে বগুড়ায় এক সপ্তাহের লকডাউন জীবন বিপর্যয় রোধকল্পে সামাজিক নিরাপত্তা: কল্পনা ও নির্মম বাস্তবতা এবার করোনার রহস্যময় ‘বাংলাদেশ ভ্যারিয়েন্ট’! ঢাকা ব্যাংকের ভল্ট থেকে পৌনে ৪ কোটি টাকা উধাও, ২ কর্মকর্তা গ্রেফতার গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের বিমান হামলা

মিয়ানমারের পূর্বাঞ্চলে সংঘর্ষে প্রায় ১ লাখ মানুষ গৃহহীন: জাতিসংঘ

চুনারুঘাট
  • সময় : বুধবার, ৯ জুন, ২০২১
  • ৩৯ বার পঠিত
মিয়ানমারের পূর্বাঞ্চলে সংঘর্ষে প্রায় ১ লাখ মানুষ গৃহহীন: জাতিসংঘ

সামরিক অভ্যুত্থান পীড়িত মিয়ানমারের পূর্বাঞ্চলে দেশটির সামরিক বাহিনী ও বিদ্রোহী বিভিন্ন গ্রুপের মধ্যে নতুন করে সংঘর্ষে প্রায় এক লাখ মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েছে।

মঙ্গলবার (৮ জুন) জাতিসংঘ একথা জানায়।

গত ফেব্রুয়ারিতে সামরিক জেনারেলদের হাতে অং সান সুচির সরকারের পতনের পর থেকে মিয়ানমারে বিশৃংখলা লেগেই রয়েছে এবং দেশটির অর্থনীতি মুখ থুবড়ে পড়েছে।

২০২০ সালের নির্বাচনে ভোট জালিয়াতি করার জন্য সুচির সরকারকে অভিযুক্ত করা হয়।

দেশটির বিভিন্ন কমিউনিটির মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়, বিশেষ করে শহরতলিগুলোতে পুলিশের হাতে অনেক মানুষ প্রাণ হারায়।

এসব এলাকায় স্থানীয় কিছু মানুষ ‘প্রতিরক্ষা বাহিনী’ গড়ে তুলেছে বলেও জানায় জাতিসংঘ।

জাতিসংঘের মিয়ানমার দপ্তর জানায়, দেশটির বেসামরিক বিভিন্ন এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সাম্প্রতিক বাছ-বিচারহীন হামলা ও ব্যাপক সংঘর্ষে প্রায় এক লাখ মানুষ তাদের ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছেন।

মিয়ানমারের পূর্বাঞ্চলীয় থাই সীমান্তবর্তী কায়াহ রাজ্যে এ দমন-পীড়ন চালানো হয়।

তারা আরো জানায়, সংঘর্ষে ক্ষতিগ্রস্ত এসব এলাকায় জরুরিভিত্তিতে খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি, আশ্রয়কেন্দ্র ও স্বাস্থ্যসেবা প্রয়োজন।

এছাড়া নিরাপত্তা বাহিনী এসব এলাকায় চলাফেরার ব্যাপারে বিধিনিষেধ আরোপ করায় অতি প্রয়োজনীয় সাহায্য সরবরাহ বিলম্বিত হচ্ছে।

কায়াহ রাজ্যের স্থানীয় বাসিন্দারা বিভিন্ন গ্রামে মোতায়েন করে রাখা কামান ব্যবহার করে গোলা বর্ষণ করার জন্য সামরিক বাহিনীকে দায়ী করেন।

অনলাইন।

Facebook Comments
এ জাতীয় আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

স্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2021 চুনারুঘাট
কারিগরি Chunarughat
Don`t copy text!